প্রেমিকার সাথে টলউডে পা রাখছেন শ্রাবন্তী পুত্র অভিমন্যু

খুব শীঘ্রই টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখতে চলেছেন শ্রাবন্তী পুত্র অভিমন্যু। নিজের প্রেমিকা দামিনীর সাথেই আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন তিনি। সম্প্রতি রানা সরকার নিজের ইনস্টা স্টোরিতে একটি ছবি শেয়ার করে শ্রাবন্তী পুত্রকে স্বাগত জানিয়েছেন। শ্রীজাত পরিচালিত ‘মানবজমিন’ ছবিতে পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করছেন তিনি।


এবার কবিতা ছেড়ে পরিচালনায় শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘মানবজমিন’ ছবির পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন তিনি। এই ছবিতে তার সহ পরিচালক হিসেবে রয়েছেন রানা সরকার। ছবির নাম শুনে অনেকেরই শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের ‘মানবজমিন’এর কথা মনে হচ্ছে। তবে এই প্রসঙ্গে পরিচালক জানিয়েছেন, কোন সাহিত্যের প্রেক্ষাপটে এই ছবি তৈরি হচ্ছে না। এই ছবির গল্প সম্পূর্ণ তার নিজের ভাবনার পরিপ্রেক্ষিতে তৈরি করা হচ্ছে।

এই ছবিতে চাঁদেরহাট বসিয়ে দিয়েছেন শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘মানবজমিন’এ পরমব্রত চ্যাটার্জী, প্রিয়াঙ্কা সরকার, পরিচালকের স্ত্রীর দূর্বা বন্দ্যোপাধ্যায়, পরান বন্দ্যোপাধ্যায় ও সৃজিতের দেখা মিলবে। ছবিতে পরমব্রতর বিপরীতে অভিনয় করবেন প্রিয়াঙ্কা সরকার। বাইক দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পর এই ছবি দিয়েই কামব্যাক করছেন প্রিয়াঙ্কা। ইতিমধ্যেই নন্দন চত্বর থেকে শুরু করে ময়দানে শুটিং করে ফেলেছেন তারা। সেইসমস্ত ছবি এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় ভাইরাল। উল্লেখ্য শ্রীজাতর স্ত্রী দুর্বা এই ছবি দিয়ে এই প্রথমবার ক্যামেরার সামনে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন।

আর এই ছবিটিরই পর্যবেক্ষক হিসেবে দেখা মিলবে শ্রাবন্তী পুত্র অভিমন্যুর। এই কাজে তার সাথে তার প্রেমিকা দামিনীও রয়েছেন। শুরু থেকেই ক্যামেরার সামনের জগত পছন্দ নয় শ্রাবন্তী পুত্রের। বরাবরই ক্যামেরার পিছনে জগত পছন্দ করেন তিনি। পর্যবেক্ষক হিসেবে ‘মানবজমিন’ তার জীবনের প্রথম ছবি। এই ছবির হাত ধরে মন দিয়ে কাজ শিখছেন অভিমন্যু। ক্যামেরার সমস্ত অ্যাঙ্গেল ভালোভাবে বুঝে নিচ্ছেন শ্রাবন্তী পুত্র। ছবির সহকারি পরিচালক রাজদীপ ঘোষের কাছ থেকে ছবির সমস্ত দৃশ্যের খুঁটিনাটি জানছেন তিনি। শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায় অর্থাৎ ছবির পরিচালক নিজেই জানিয়েছেন অভিমন্যু এই ছবির পর্যবেক্ষক হিসেবেই কাজ করছেন। জানা গেছে, পরিচালক হিসেবেই ইন্ডাস্ট্রিতে থাকার ইচ্ছা অভিমন্যুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.